ময়মনসিংহে হোমিও চিকিৎসককে প্রকাশ্যে কুপিয়ে হত্যা

ময়মনসিংহের গফরগাঁও উপজেলার পাগলা এলাকায় প্রকাশ্য দিবালোকে হারুনুর রশিদ হারুন (৫৫) নামে এক হোমিও চিকিৎসককে কুপিয়ে হত্যার ঘটনা ঘটেছে। এই ঘটনায় রুবেল (৩৫) নামে একজনকে আটক করেছে পুলিশ।

সোমবার (১৫ জানুয়ারি) দুপুরে উপজেলার পাইথল ইউনিয়নের গয়েশপুর বাজারে ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, নিহত হারুন অর রশিদ ওই ইউনিয়নের গোয়ালবর গ্রামের মৃত খুরশেদ আলমের ছেলে। আটক রুবেল মিয়া একই ইউনিয়নের নেওকা গ্রামের শাহাব উদ্দিনের ছেলে।

স্থানীয়দের বরাতে পুলিশ জানায়, ভিক্টিম নিহত হারুনুর রশিদ একজন হোমিও চিকিৎসক। তিনি সোমবার দুপুরে নিজ প্রতিষ্ঠান ফিরোজা হোমিও হলে বসে ছিলেন। এ সময় হঠাৎ রুবেল মিয়া এসে তাঁকে দোকান থেকে বের করে কুপিয়ে হত্যা করে।

এই ঘটনার পর উত্তেজিত জনতা রুবেলের বাড়িতে আগুন দিয়েছে। পরে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পাগলা থানা পুলিশ ফাঁকা গুলি ছোঁড়ে। এই ঘটনায় এলাকায় থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

এ বিষয়ে পাগলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ খাইরুল আলম বলেন, 'এই ঘটনায় ঘাতক রুবেল মিয়াকে আটক করা হয়েছে'। 

ময়মনসিংহের পুলিশ সুপার মাছুম আহমেদ ভূইয়া জানান, ব্যক্তিগত বিরোধের জেরে এ হত্যাকাণ্ড হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারনা করা হচ্ছে। 

Next Post Previous Post